ব্রি ধান ৯০ চাষ পদ্ধতি ও এর বৈশিষ্ট্য

ব্রি ধান ৯০ চাষ পদ্ধতি

ব্রি ধান ৯০ উফশী রোপা আমন জাতের একটি ফসল যা বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক ২০১৯ সালে চাষাবাদের জন্য অনুমোদিত হয়েছে। এর জীবনকাল ব্রি ধান ৩৪ এর থেকে ২২ দিন কম এবং ১ থেকে ১.৪ মেট্রিক টন বেশি ফলন দেন (প্রতি হেক্টরে)। এই জাতের জীবনকাল ১১৫ - ১২৫ দিন এবং গড় জীবনকাল ১২২ দিন। ব্রি ধান ৯০ চাষাবাদে কিছুটা কম পরিমাণ ইউরিয়া সারের প্রয়োজন হয়। এর গড় ফলন ৪.৫ - ৫.০ টন (হেক্টর প্রতি)।

ব্রি ধান ৯০ চাষ পদ্ধতি

ব্রি ধান ৯০ এর চাষ পদ্ধতি অন্যান্য রোপা আমন জাতের (উফশী) মতই।
  1. বীজতলায় বীজবপন: ১৫ই আষাঢ় - ০৫ই শ্রাবণ (১ই জুলাই - ২০ই জুলাই) পর্যন্ত বীজ বপন করার উপযুক্ত সময়।
  2. চারার বয়স: ২০ থেকে ২৫ দিন।
  3. রোপণ দুরত্ব: ২০ × ১৫ সে.মি. দুরত্বে বা ব্যবধানে রোপন করতে হবে।
  4. চারার সংখ্যা: ২ - ৩টি করে প্রতি গোছায়।
  5. চাষের উপযুক্ত জমি: এ ধান চাষ করার জন্য উপযুক্ত জমি হলো মাঝারি উঁচু থেকে উঁচু জমি।
  6. সার প্রয়োগ (বিঘা প্রতি): ইউরিয়া- ২০ কেজি, এমপি- ১০ কেজি, টিএসপি- ৭ কেজি, জিপসাম- ৬ কেজি ও দস্তা সার বা জিংক সালফেট- ১ কেজি।
    • জমি সর্বশেষ চাষের সময় সমস্ত টিএসপি, জিপসাম, জিংক সালফেট (দস্তা) ও অর্ধেক এমপি সার একসাথে প্রয়োগ করবেন।
    • ইউরিয়া তিন বারে সমান তিন ভাগে ব্যবহার করতে হবে যথা- ১ম বার চারা রোপনের ১০ দিন পর, ২য় বার ২৫ দিন পর এবং ৩য় বা শেষবার ৪০ দিন পর প্রয়োগ করতে হবে।
    • এমওপির বাকী অর্ধেক ইউরিয়া সার তৃতীয় বার প্রয়োগ করার সময় দিতে হবে।
  7. আগাছা দমন: ৪০ - ৪৫ দিন পর্যন্ত সঠিকভাবে পরিচর্যা করে আগাছামুক্ত রাখতে হবে।
  8. সেচ ব্যবহার: জমিতে পর্যাপ্ত রসের ব্যবস্থা রাখতে হবে থোড় আশা থেকে দুধ আশা পর্যন্ত।
  9. পোকামাকড় বা রোগ বালাই দমন: পোকামাকড় বা রোগবালাইয়ের আক্রমণ অনেক কম হয়। তারপরো যদি পোকামাকড় বা কোনো রোগবালাই দেয় তাহলে অবশ্যই অনুমোদিত বালাইনাশক ব্যবহার করতে হবে।
  10. ফসল কাটা: অক্টোবর মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে নভেম্বরের ২য় সাপ্তাহ অর্থাৎ অক্টোবরের ১৫ তারিখ থেকে নভেম্বরের ৮ তারিখ এর মধ্যে ধান কেটে ফেলতে হবে।।

ব্রি ধান ৯০ এর বৈশিষ্ট্য

  1. আধুনিক উফশী বা উচ্চফলনশীল ধানের সকল বৈশিষ্ট্য ব্রি ধান ৯০ এর মধ্যে বিদ্যমান।
  2. গড় উচ্চতা ১১০ সে.মি.।
  3. গাছের কান্ড শক্ত তাই সহজে হেলে পড়ে না।
  4. ধান পাকার পরেও গাছের কান্ড ও পাতা সবুজ থাকে।
  5. গাছের ডিগ পাতা খাড়া থাকে।
  6. ব্রি ধান ৩৪ এর মতই চালের দানার আকার-আকৃতি।
  7. ব্রি ধান ৯০ এর চালে হালকা সুগন্ধ রয়েছে।
  8. ১,০০০টি পরিপুষ্ট ধানের গড় ওজন প্রায় ১২.৭ গ্রাম।
  9. চালে প্রোটিন ১০.৩% এবং অ্যামাইলোজের ২৩.২%।
  10. ধানের শীষের ফুলগুলো সব প্রায় একসাথেই ফোটে যেকারণে এবং একসাথেই পাকে, তাই পোকামাকড়ের আক্রমণ হলে অল্পদিনের পরিচর্যাতেই ফসল টেকানো যায়।
No Comment
Add Comment
comment url