Advertisements

DPDC Salary Structure - ডিপিডিসি বেতন কাঠামো

ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি) সর্বোচ্চ তিন (০৩) বছরের জন্য প্রাথমিকভাবে চুক্তিভিত্তিক অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার এবং সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার পদের নিয়োগ প্রদান করে থাকে। প্রথম ০১ বছর প্রবেশনারি সময়ের অন্তর্ভুক্ত হবে। সন্তোষজনক কর্মক্ষমতা সাপেক্ষে প্রবেশনারি পিরিওড শেষে চাকরিতে স্থায়িকরণ হয়ে থাকে। প্রতি তিন (০৩) বছর অন্তর চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ নবায়ন করা হয়ে থাকে এবং চাকরির বয়স ৩০ বছর বা ব্যাক্তিগত বয়স সর্বোচ্চ ৬০ বছর পর্যন্ত চাকরি স্থায়ি হয়ে থাকে।

ডিপিডিসি বেতন স্কেল-২০১৫ (DPDC Salary Scale-2015) অনুসারে অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারদের মাসিক মূল বেতন (Assistant Engineer Salary) ৫১ হাজার টাকা এবং ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের মাসিক মূল বেতন ৩৯ হাজার টাকা, বাড়িভাড়া ভাতা স্থানভেদে মূল বেতনের ৫০% বা ৬০% হয়ে থাকে, এছাড়াও চিকিৎসা ভাতা, যাতায়াত ভাতা বাংলা নববর্ষ ভাতাসহ বিভিন্ন ধরণের বোনাস পেয়ে থাকেন। নিচে ডিপিডিসির চাকরির বেতনভাতা, অন্যান্য সুযোগ সুবিধা এবং নিয়োম কানুনসমূহ বিস্তারিতভাবে তুলে ধরা হলো:

ডিপিডিসি বেতন কাঠামো (DPDC Salary Structure)

ডিপিডিসি বেতন স্কেল- ২০১৬" অনুসারে চাকরিতে যোগদান কালীন পদবী, মূল বেতন, গ্রেড এবং বার্ষিক শতকরা ইনক্রিমেন্ট এর তালিকা নিচে দেয়া হয়েছে। (বি:দ্র: ডিপিডিসিতে মোট গ্রেড ১৬টি)

গ্রেডচাকুরিতে যোগদান পদবীমূল বেতন
(টাকা)
% ইনক্রি মেন্ট
ম্যানেজিং ডাইরেক্টর (MD)১৭৫,০০০/-৭৫.০০%
এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর (Admi. & HR )
এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর (Finance)
এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর (ICT)
১৪০,০০০/-৬৪.৭১%
চিফ ইঞ্জিনিয়ার
জেনারেল ম্যানেজার (HR)
জেনারেল ম্যানেজার (Finance & Accounts)
কম্পানি সেক্রেটারি
জেনারেল ম্যানেজার (ICT)
১১৪,০০০/-৬২.৮৬%
সুপারেনটেন্ডিং ইঞ্জিনিয়ার
ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (HR)
ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (Finance)
ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ICT)
চিফ মেডিক্যাল অফিসার
৯৮,০০০৬৩.৩৩%
এক্সিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার
ম্যানেজার (HR)
ম্যানেজার (Finance)
সিনিয়র মেডিক্যাল অফিসার
৭৯,০০০৭৫.৫৬%
সাব-ডিভিশনাল ইঞ্জিনিয়ার
ডেপুটি ম্যানেজার (HR)
ডেপুটি ম্যানেজার (Finance)
ডেপুটি ম্যানেজার (ICT)
৬১,০০০৭৪.২৯%
এসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার
এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (HR)
এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (Finance)
এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (ICT)
মেডিক্যাল অফিসার
৫১,০০০৭৫.৮৬%
সাব-এসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার
জুনিয়র এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (HR)
জুনিয়র এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (Finance)
জুনিয়র এসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (ICT)
৩৯,০০০৭৩.৩৩%
ফোরম্যান
বিল সুপারভাইসর
ডাটা এন্ট্রি করডিনেটর
মেডিল এসিস্ট্যান্ট
৩২,০০০৭২.৯৭%
১০ক্যাবল জয়েন্টার
কম্প্লেইন সুপারভাইসর
ড্রাফ্টস ম্যান
২৭,০০০৭৪.১৯%
১১সুইচ বোর্ড এটেন্ডেন্ট
মিটার টেস্টার
অফিস এসিস্ট্যান্ট কাম-কম্পিউটার অপারেটর
ট্রান্সপোর্ট সুপারভাইসর
অফিস সুপারভাইসর
এসিস্ট্যান্ট একাউন্টেন্ট
২৫,০০০৭৩.৬১%
১২স্টোর কিপার
নার্স
সিনিয়র এ্যাকাউন্ট এসিস্ট্যান্ট
২৪,০০০৭৬.৪৭%
১৩ইলেক্ট্রিশিয়ান
লাইনম্যান
প্লাম্বার
ডাটা এন্ট্রি অপারেটর
ড্রাইভার
এ্যাকাউন্ট এসিস্ট্যান্ট
কাস্টমার সার্ভিস এ্যাটেন্ডেন্ট
২৩,০০০৭৬.৯২%
১৪অফিস এসিস্ট্যান্ট
রেসিপশন টেলিফোন অপারেটর
১৮,০০০৭১.৪৩%
১৫লাইনম্যান ম্যাট
স্টোর ম্যাট
সিকিউরিটি গার্ড
১৭,০০০৭৭.০৮%
১৬অফিস সাপোর্ট স্টাফ
ক্লিনার
১৫,০০০৬৬.৬৭%

  • মূল বেতন:
    • অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারদের ৫১ হাজার টাকা (গ্রেড- ৭)
    • সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ারদের ৩৯ হাজার টাকা (গ্রেড- ৮)
    • অন্যান্য পদের মূল বেতন উপরের লিস্ট থেকে দেখে নিন।
  • বাড়ি ভাড়াভাতা: মূল বেতনের-
    • ৬০% (ঢাকা শহরের জন্য)
    • ৫০% (নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর)
  • চিকিৎসা ভাতা: নিজ, নিজের স্ত্রী, সন্তান, বাবা এবং মার জন্য বছরে দুইবার মুল বেতনের সমপরিমাণ চিকিৎসা ভাতা হিসেবে উত্তলন করা যাবে।
  • বিদ্যুৎ ভাতা: মূল বেতনের ৪%, সর্বোচ্চ ৩০০ ইউনিট বিদ্যুৎ বিলের সম পরিমাণ টাকা।
  • মোবাইল বিল: প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মাসিক ৫০০ টাকা (দায়িত্বভেদে সবার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়।)
  • সিফ্টিং ভাতা: মূল বেতনের ৫% (যারা গ্রিডে শিফটিং ডিউটি করেন তাদের ক্ষেত্রে প্রাপ্য)
  • সন্তানের শিক্ষাভাতা: মাসিক ১৫০০ টাকা করে সর্বোচ্চ ২টি সন্তানের জন্য ২১ বছর বয়স পর্যন্ত
  • যাতায়াত ভাতা: ৩৫০০ টাকা।
  • ওভারটাইম: যারা ওভার টাইম করবেন তারা মূল বেতনের হিসেবে ঘন্টা প্রতি প্রাপ্য হবেন।

বি:দ্র: ডিপিডিসি কর্তৃক বরাদ্দকৃত আবাসন বা বাড়ি যারা গ্রহণ করেন তারা বাড়িভাড়া ভাতা পাবেননা, তবে যদি এমন কোনো সিট বা রুম গ্রহণ করে থাকেন তবে বাড়িভাড়া ভাতা থেকে ঐ সিট বা রুমের ভারার সমপরিমাণ কর্তন হবে। স্বামী-স্ত্রী দুই জনই ডিপিডিসিতে কর্মরত থাকলে বাড়িভাড়া ভাতা যে কোন একজন পাবেন। একইভাবে সন্তানের শিক্ষা ভাতা যে কোনো একজন গ্রহণ করতে পারবেন।

বিভিন্ন বোনাসসমূহ:

  • বাংলা নববর্ষ ভাতা: মূল বেতনের ২০% হারে বছরে ১ বার।
  • ঈদ বোনাস (মুসলমানদের জন্য):ঈদুল ফিতর এবং ঈদুল আযহার জন্য দুইটি ঈদ বোনাস পাবেন মূল বেতনের সমপরিমাণ।
  • অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের ক্ষেত্রে: যে কোনো একটি বড় উৎসবে একসাথে ২টি মূল বেতনের সমপরিমাণ বোনাস পাবেন।
  • CPA: কম্পানি যদি ক্ষতি বা লোকসানে থাকে তবে কোনো CPA পাবেন না, তবে লোকসানে না থাকলে কম্পারির লাভের পরিমাণের উপর নির্ভর করে মূল বেতনের ৭৫% বা ১০০% বা সর্বোচ্চ ২০০% পাবেন বছর শেষে (ডিপিডিসির ওডিড বছর হিসাব)
  • এছাড়াও গ্র্যাচুইটি এবং অন্যান্য ভাতাদি ডিপিডিসির বিধিমালা অনুযায়ী পাওয়া যাবে।

বেতন বৃদ্ধি:

"DPDC Salary Scale 2016" অনুযায়ী বেতন প্রতি বছর 4% হারে বৃদ্ধি পাবে ও সকল ভাতা বহাল থাকবে।

যোগদানের শর্ত:

  • মূল সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে।
  • ডিউটি টাইম: ৮ ঘন্টা ( ৭ ঘন্টা ডিউটি +১ ঘন্টা লান্স ব্রেক)
  • কম্পানির প্রয়োজনে ওভার টাইম করা লাগতে পারে, প্রয়োজন না থাকলে ওভার টাইম নেই।
  • চাকরিতে নিয়োগের পর ০১ (এক) বছর প্রবেশন পিরিয়ড চলবে। ১ বছর পর সন্তোষজনক ফলাফলের ভিত্তিতে ৩ বছরের জন্য চাকরির মেয়াদ স্থায়িকরণ করা হবে (প্রবেশনার ১ বছরসহ ধরে ৩ বছর হিসাব)।
  • প্রতি ৩ বছর পরপর চাকরি নবায়ণ হবে, এভাবে সর্বোচ্চ ৩০ বছর পর্যন্ত নবায়ন হবে যদি কর্মদক্ষতা সন্তোসজনক হয়।
  • প্রবেশন পিরিয়ডে কোনো কারণে চাকরি ছাড়তে চাইলে নূন্যতম ১ মাস পূর্বে কর্তৃপক্ষ বরাবর দরখাস্ত দিতে হবে অথবা ১ মাসের বেতনের সমপরিমাণ অর্থ জরিমাণা স্বরুপ প্রদান করে চাকরি থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করতে পারবেন।
  • চাকরিতে স্থায়ীকরণ হয়ে যাবার পর অর্থাৎ প্রবেশন পিরিয়ড পার হবার পর যদি কেউ স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করতে চান তাহলে নূন্যতম ৩ মাস পূর্বে দর্খাস্ত জমা দিতে হবে।

এডমিন রিভিউ: ★★★★★

ডিপিডিসির চাকরি নিশ্বন্দেহে ইন্জিনিয়ারিং খাতে প্রথম সারির চাকরি। বেতনভাতা, সুযোগ সুবিধা সব দিক থেকেই পছন্দসই ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব ডিপিডিসিতে। কোন বড় ঝামেলা না করলে সহজে চাকরি হারাবে না। জেষ্ঠতা এবং উর্ধতন কর্মকর্তাগণদের নির্দেশনা যথাযথভাবে পালন করতে ব্যার্থ হলে চাকরি নবায়ন না হবার ভয় থাকে। এতে করে সকলে নিজ নিজ কাজ আন্জাম দিতে সতর্ক থাকেন। এদিকটি মাথায় রাখা জরুরি।

ছুটি:

★সাধারণ ছুটি নেয়া যাবে বৈধ/জরুরী প্রয়োজনে,
★ ঈদ ছুটি: ৭+৫=১১ দিন
★ সাপ্তাহিক ছুটি: শুক্রবার
★ অন্যান্য সকল সরকারী ছুটির দিনগুলিতে ছুটি থাকবে। (ঐচ্ছিক ছুটি বাদে)
বি:দ্র: পদ বা দায়িত্বভেদে এবং কম্পানির চাহিদা অনুসারে ঈদ ছুটিসহ অন্যান্য ছুটির পরিমাণ কম বেশি হয়ে থাকে। দায়িত্ব ভেদে ঈদ ছুটি বা পূজার ছুটি বা গ্রীষ্মকালিন ছুটিসহ অন্যান্য ছুটি নাও পাওয়া যেতে পারে, তবে পরবর্তীতে একসাথে ছুটি উপভোগ করা যাবে।

DPDC এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাস:

প্রতিষ্ঠাকাল: ২৫ অক্টোবর, ২০০৫ সাল
বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক: প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান

ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেড (ডিপিডিসি) ২৫ অক্টোবর, ২০০৫ সালে কোম্পানী আইন ১৯৯৪ এর অধীনে গঠিত হয় যার অনুমোদিত শেয়ার ১০,০০০ (দশ হাজার) কোটি যা ১০০ (একশত) কোটি ১০০ টাকা দামের সাধারণ শেয়ারে বিভক্ত।

২৫ অক্টোবর, ২০০৫ থেকে ডিপিডিসি ব্যবসা আরম্ভ করার অনুমতি লাভ করে এবং অপারেশন শুরু করে ১৪ মে ২০০৭ থেকে। ডেসা থেকে সকল সম্পদ ও দায় দায়িত্ব গ্রহণ করে ১লা জুলাই, ২০০৮ থেকে কোম্পানী বাণিজ্যিকভাবে অপারেশন শুরু করে । ডিপিডিসি ৬,৫৫,৯০৮ জন গ্রাহক নিয়ে তার অপারেশন শুরু করে এবং বর্তমানে গ্রাহকের সংখ্যা ১৬ লাখ ৫ হাজার ৪৬৭ জন (৩১ আগস্ট, ২০২২ পর্যন্ত) এ পৌঁছেছে।

প্রচলিত আইনের কাঠামোর মধ্যে ডিপিডিসির সামগ্রিক পরিচালনার জন্য চূড়ান্ত কর্তৃপক্ষ হলো পরিচালনা পর্ষদ। সরকার কর্তৃক মনোনীত ১২ (বারো) জন পরিচালক দ্বারা বোর্ড গঠিত। পরিচালনা পর্ষদের নির্দেশনা অনুযায়ী, ডিপিডিসি'র কৌশলগত ফাংশন একটি ব্যবস্থাপনা দল দ্বারা পরিচালিত হয় যার প্রধান হলেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও পাঁচ নির্বাহী পরিচালক (যথাক্রমেঃ নির্বাহী পরিচালক (অপারেশন), নির্বাহী পরিচালক (প্রকৌশল), নির্বাহী পরিচালক (আইসিটি এন্ড প্রকিউরমেন্ট), নির্বাহী পরিচালক (ফাইন্যান্স) ও নির্বাহী পরিচালক (এডমিন এন্ড এইচআর)।

Home