রোমানিয়ার মেয়েরা কেমন? রোমানিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায় কি?

রোমানিয়ার মেয়েরা কেমন

দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের একটি দেশ রোমানিয়া। এর পশ্চিমে হাঙ্গেরি এবং সার্বিয়া, উত্তর-পূর্বে রয়েছে ইউক্রেন ও মলদোভা, দক্ষিণে বুলগেরিয়া ও দানিউব নদী। রোমানিয়ার পূর্বে কৃষ্ণ সাগর এবং কার্পেথিয়ান পর্বতমালার দক্ষিণ ও পূর্ব অংশ মধ্য রোমানিয়ায় অবস্থিত। "বুখারেস্ট" হল রোমানিয়ার রাজধানীর নাম। স্বাধীনতার পূর্বে রোমানিয়া "উসমানীয় সাম্রাজ্যের" অংশ ছিল।

রোমানিয়ার মেয়েরা কেমন ?:

রোমানিয়ার মেয়েরা দেখতে খুবি সুন্দর হয়। রোমানিয়ার মেয়েরা যেমন সুন্দরী তেমনি তাদের লাইফস্টাইল, যা যে কোন পুরুষ মানুষকে আকর্ষণ কারর জন্য যথেষ্ট। আর সে জন্যই রোমানিয়ার মেয়েদেরকে "কুইন অফ রোমানিয়া" বলা হয়। এছাড়ও রোমানিয়ার মেয়েরা অনেক শিক্ষিত ও পরিশ্রমী হয় এবং তাদের ব্যবহার অমায়িক।
  1. রোমানিয়ার মেয়েরা লম্বা ও খুবি আকর্ষণীয় হয়।
  2. রোমানিয়ার বেশিরভাগ মেয়ে শিক্ষিত।
  3. শিক্ষিত, ভদ্র ও নরম স্বভাবের ছেলেদেরকে রোমানিয়ার মেয়েরা অনেক বেশি পছন্দ করে।
  4. অধিকাংশ রোমানিয়ার মেয়েদের চুল কালো হয়।
  5. রোমান মেয়েরা বিশেষ স্টাইলে চুল রাখে, যা দেখে সহজেই বোঝা যায় তাদের কে বিবাহিত আর কে অবিবাহিত। 
  6. অবিবাহিত মেয়েরা চুল খোলা রাখতে পছন্দ করেন। তবে কেউ কেউ বেণী করে রাখতে সাচ্ছন্দবোধ করেন।
  7. বিবাহিত মেয়েরা এক ধরণের কাপড় দিয়ে তাদের চুল ঢেকে রাখেন।
  8. মেয়েরা বিয়ের পর অনেকগুলো সন্তান নিয়ে থাকেন, কারণ জন্মনিয়ন্ত্রণে তাদের আগ্রহ কম।
  9. শহরাঞ্চলে যে সব মেয়েরা বসবাস করে তারা পাশ্চাত্য ভাবধারার পোশাক বেশি পছন্দ করে।
  10. গ্রামাঞ্চল বা পল্লী এলাকার মেয়েরা নিজ নিজ অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পড়তে বেশি পছন্দ করেন।
  11. মানুষের সাথে বন্ধুসুলভ আচরণ, আতিথেয়তা ও আন্তরিকতার জন্য তাদের বেশ পরিচিতি রয়েছে বিশ্বজুরে।
  12. এখানকার মেয়েরা ঐতিহ্যগতভাবেই এলকোহল পান করতে পছন্দ করেন।
  13. রোমানিয়ার অধিকাংশ মেয়ে কালো যাদু শিক্ষা গ্রহণ করে থাকে এবং এটা রোমানিয়ার বাসিন্দাদের জন্য সরকারিভাবে বৈধ। এমনকি সরকার কালো জাদুর সাথে সম্পৃক্তদের থেকে আলাদা কর নিয়ে থাকে।

রোমানিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার উপায়:

রোমানিয়া নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য ৪টি উপায় আছে। যথা: ১. জন্ম, ২. দত্তক, ৩. প্রত্যাবাসন এবং ৪. অনুরোধ।

জন্ম:

রোমানিয়ার নাগরিকদের কাছে জন্মগ্রহণকারী সমস্ত শিশু জন্মের সাথে সাথে নাগরিকত্ব লাভ করেন। রোমানিয়ার নাগরিকদের বাচ্চার জন্ম নিজ দেশে বা বিদেশে হোক না কেনো এই বাচ্চা রোমানিয়ার নাগরিকত্ব লাভ করবে, তবে বাচ্চার পিতা-মাতা যে কোনো একজনকে অবশ্যই রোমানিয়ান নাগরিক হতে হবে। আবার, রোমানিয়ার ভূখণ্ডে কুড়িয়ে পাওয়া বা অনাথ যে কোনো বাচ্চাকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়।

দত্তক:

রোমানিয়ার নাগরিকদের দ্বারা আইনত দত্তক নেওয়া যেকোনো শিশুকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়। যদি পালক পিতামাতা একজন রোমানিয়ান নাগরিক হন এবং অন্যজন বাহিরের হন, তাহলেও শিশুটি রোমানিয়ার নাগরিকত্ব পাবে। তবে পালক পিতা ও মাতার উভয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যদি তারা পারস্পরিক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে না পারে, তাহলে আদালত সিদ্ধান্ত নেবে। শিশুর বয়স ১৮ বছর হলে তার সিদ্ধান্তের এপর নির্ভর করবে।

প্রত্যাবাসন:

রোমানিয়ার নাগরিকত্ব হারিয়েছেন এমন যেকোনো ব্যক্তি চাইলে নাগরিকত্ব ফিরে পেতে পারেন। এমনকি, নাগরিকত্ব হারিয়েছে এমন কারো সন্তান বা নাতি-নাতনি প্রত্যাবাসনের অধিকারী।

অনুরোধ:

বিদেশী নাগরিকদের বা নাগরিকত্ব ছাড়াই একজন ব্যক্তিকে নাগরিকত্ব দেওয়া যেতে পারে যারা নিম্নলিখিত তিনটি বিভাগের মধ্যে একটি অন্তর্ভুক্ত করে যোগ্যতা অর্জন করে:

  1. রোমানিয়াতে জন্মগ্রহণ করেন এবং বর্তমানে সেখানে বসবাস করেন;
  2. কমপক্ষে আট বছর ধরে রোমানিয়ায় বসবাস করেছেন; বা রোমানিয়াতে বসবাস করেছেন এবং কমপক্ষে পাঁচ বছর ধরে একজন রোমানিয়ান নাগরিকের সাথে বিয়ে করেছেন।
  3. নাগরিকত্বের জন্য যে আবেদন করবেন তার বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর হতে হবে এবং অবশ্যই রোমানিয়ান ভাষা ও সংস্কৃতি সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকতে হবে।
এমন অনেকগুলি যোগ্যতা রয়েছে যা থাকলে রোমানিয়ার নাগরিকত্ব লাভের জন্য অর্ধেক সময় বা তারো কম সময় লেগে থাকে। যেমন: আবেদনকারী যদি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত ব্যক্তিত্ব হন; আবেদনকারী একটি ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রের নাগরিক; আবেদনকারী শরণার্থী মর্যাদা পেয়েছে; অথবা আবেদনকারী €1,000,000 রোমানিয়াতে বিনিয়োগ করেছেন।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url